Wellcome to National Portal
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২২

শক্তি-দক্ষতা ও চাহিদা ব্যবস্থাপনা

শক্তি দক্ষতা কি?

একই কাজে কম শক্তি ব্যবহার করা, শক্তি জনিত ব্যয় কমানো ও পরিবেশ দূষণ মুক্ত করার প্রক্রিয়াকেই শক্তি দক্ষতা বলে। অনেক পণ্য আছে যাতে প্রচুর জ্বালানি শক্তি ব্যয় করতে হয় বা অনেক অপরিকল্পিত ভবন আছে যেখানে প্রচুর পরিমানে শক্তির অপচয় হয়। অপচয় রোধ করা ও কম শক্তি ব্যয় করে অধিক সহজ উপায়ে যান্ত্রিক কার্যক্রম পরিচালনা করাই হলো শক্তি দক্ষতা ।

শক্তি দক্ষতা উদাহরণঃ

অধিকাংশ ক্ষেত্রেই শক্তি-দক্ষতা উন্নতি করার যথেষ্ট সুযোগ রয়েছে।  কিছু পণ্য, যেমন শক্তি-দক্ষ আলোর বাল্ব একই পরিমাণ আলো তৈরি করতে কম শক্তি ব্যবহার করে। আবার কিছু কিছু ক্ষেত্রে শক্তি সরাসরি ব্যবহার না করেও শক্তি জনিত কার্যক্রম সম্পন্ন করে ফেলা সম্ভব। যেমন তাপনিরোধক জানালা একটি বাড়ি বা ভবনের সামগ্রিক দক্ষতা ও আরামদায়ক উষ্ণসহিষ্ণুতার পরিবেশ গড়ে তুলতে সক্ষম যার জন্য বাড়তি শক্তি ব্যয় করার কোন প্রয়োজনই হয় না।

ENERGY STAR® প্রতীক হলো উচ্চ দক্ষতার আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত একটি বিশ্বস্ত চিহ্ন। প্রতীকটির অর্থ হলো কোন পণ্য, কোন নতুন বাড়ি বা  বিল্ডিং অথবা  শিল্প প্রতিষ্ঠান শক্তি-দক্ষতায় অধিক সুবিধাজনক হলে এই স্বীকৃতি অর্জন করে।  

একটি ENERGY STAR প্রতীক অর্জন করা LED বাল্ব একই পরিমান আলো বিতরণ করে এমন একটি দ্যুতিময় (Incadescent) বাল্বের তুলনায় 70-90% কম শক্তি ব্যবহার করে।

শক্তি-দক্ষ জানালাসমূহ এমন উপকরণ দিয়ে তৈরি যা দ্বারা তাপ বিনিময় কম হয় এবং বাতাস নিয়ন্ত্রিত যার অর্থ হল কোনও স্থানকে গরম করতে বা ঠান্ডা করতে তেমন শক্তির প্রয়োজন নেই।

তাপ নিরোধক যুক্ত করা একটি কক্ষকে শীতকালে ভিতরের উষ্ণ বাতাসকে রক্ষা করে। গ্রীষ্মে এটি গরম বাতাসকে বাইরে রাখে। ভাল নিরোধক শীতকালে ঘরকে গরম বা গ্রীষ্মে শীতল রাখতে সহযোগিতা করে যাতে তেমন  শক্তি ব্যবহার করার প্রয়োজন হয় না।

স্মার্ট থার্মোস্ট্যাট হলো Wi-Fi দ্বারা নিয়ন্ত্রিত একটি ডিভাইস যাতে পছন্দ মতো তাপমাত্রার তালিকা লোড করে রাখা হয় । এটি  স্বয়ংক্রিয়ভাবে সামঞ্জস্য তাপমাত্রায় বাড়ির গরম এবং শীতলতা নিয়ন্ত্রণ করতে পারে। একটি খালি ঘর গরম বা ঠান্ডা করতে অর্থ ব্যয় না করেই শক্তি জনিত বিল কমাতে সাহায্য করতে পারে।

পাওয়ার অন করা কম্পিউটার ব্যবহার না করার সময় স্বয়ংক্রিয়ভাবেই "স্লিপ" মোডে প্রবেশ করতে পারে। এতে শক্তির অপচয় রোধ হয়।

 

শক্তি চাহিদা ব্যবস্থাপনাঃ

এনার্জি ডিমান্ড ম্যানেজমেন্ট যা ডিমান্ড-সাইড ম্যানেজমেন্ট (DSM) বা ডিমান্ড-সাইড রেসপন্স (DSR) নামেও পরিচিত। বিভিন্ন পদ্ধতি ব্যবহার করে যেমন আর্থিক প্রণোদনা বা শিক্ষার মাধ্যমে আচরণগত পরিবর্তনের মাধ্যমে ভোক্তাদের চাহিদার পরিবর্তন ঘটানো হয়।

সাধারণত, চাহিদা-সদৃশ ব্যবস্থাপনার লক্ষ্য হলো ভোক্তাকে পিক আওয়ারে কম শক্তি ব্যবহার করতে উৎসাহিত করা অথবা শক্তি ব্যবহারের সময়কে অফ-পিক সময়ে যেমন রাত্রিকালীন এবং সপ্তাহান্তে স্থানান্তর করা। পিক ডিমান্ড ম্যানেজমেন্ট মোট শক্তি খরচ কমায় না, তবে সর্বোচ্চ চাহিদা মেটানোর জন্য নেটওয়ার্ক অথবা পাওয়ার প্লান্টে বিনিয়োগের প্রয়োজনীয়তা কমিয়ে দেয়।

DSM-এর জন্য একটি নতুন অ্যাপ্লিকেশন হলো গ্রিড অপারেটরদের বায়ু এবং সৌর ইউনিট থেকে বিরতিহীন উৎপাদনের ভারসাম্য বজায় রাখতে সাহায্য করা।

ডিএসএম শব্দটি 1973 ও 1979 সালের শক্তি সংকটের সময় অনুসরণ করে তৈরি করা হয়েছিল। 1980 এর দশকে ইলেকট্রিক পাওয়ার রিসার্চ ইনস্টিটিউট (EPRI) দ্বারা ডিমান্ড-সাইড ম্যানেজমেন্ট সর্বজনীনভাবে চালু করা হয়েছিল। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি এবং পাওয়ার সিস্টেমের একত্রীকরণের কারণে ডিএসএম প্রযুক্তি আ   রো বেশি সুবিধাজনক ও দক্ষ প্রযুক্তিতে পরিণত হয়েছে। বর্তমানে এই প্রযুক্তি ইন্টিগ্রেটেড ডিমান্ড-সাইড ম্যানেজমেন্ট (আইডিএসএম), বা স্মার্ট গ্রিড নামে পরিচিত।

স্মার্ট গ্রিড হলো ডিজিটাল প্রযুক্তির ভিত্তিতে একটি বিদ্যুৎ নেটওয়ার্ক যা দ্বি-মুখী ডিজিটাল যোগাযোগের মাধ্যমে গ্রাহকদের বিদ্যুৎ সরবরাহ করতে ব্যবহৃত হয়। এই সিস্টেমটি সরবরাহ চেইনের মধ্যে পর্যবেক্ষণ, বিশ্লেষণ, নিয়ন্ত্রণ এবং যোগাযোগের দক্ষতা উন্নত করতে, শক্তির ব্যবহার এবং ব্যয় হ্রাস করতে এবং শক্তি সরবরাহের স্বচ্ছতা এবং নির্ভরযোগ্যতা সর্বাধিকায়িত করতে সহায়তা করে। স্মার্ট নেট মিটার ব্যবহার করে প্রচলিত বৈদ্যুতিক গ্রিডসমূহের  দুর্বলতা কাটাতে স্মার্ট গ্রিড ব্যবস্থাপনা কার্যকর।

এনার্জি ডিমান্ড ম্যানেজমেন্ট কার্যক্রম বিদ্যুতের চাহিদা এবং সরবরাহকে পর্যবেক্ষণ, বিশ্লেষণ ও নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করে এবং বিদ্যুৎ ব্যবহারকারীদের চাহিদা কমানো ও তাদের ব্যয় সুবিধা দিতে সাহায্য করে। IDSM স্বয়ংক্রিয়ভাবে সিস্টেমের অবস্থার উপর নির্ভর করে লোড কমানোর জন্য শেষ দিকে ব্যবহার করা সিস্টেমসমূহে সংকেত পাঠায়। এটি সর্বদা সরবরাহের সাথে সামাঞ্জস্য রেখে চাহিদার সুনির্দিষ্ট  অনুমতি প্রদান করে ও ইউটিলিটির জন্য মূলধন ব্যয় হ্রাস করে।

বাংলাদেশ জ্বালানি ও বিদ্যুৎ গবেষণা কাউন্সিল শক্তির অপচয় রোধ ও শক্তি খাতে ব্যবহার যোগ্য পণ্যের শক্তি-দক্ষতা বৃদ্ধিতে গুরুত্ব আরোপ করছে। একই সাথে শক্তির উৎপাদন, সরবরাহ ও গ্রাহক চাহিদার সংগে সামঞ্জস্য রেখে এনার্জি ডিমান্ড ম্যানেজমেন্ট সিস্টেমকেও আধুনিক করার জন্য প্রয়োজনীয় গবেষণা প্রকল্পে অর্থায়ন করছে।

যারা পণ্যের শক্তি-দক্ষতা বৃদ্ধিতে ও এনার্জি ডিমান্ড ম্যানেজমেন্টের নিমিত্ত প্রায়োগিক গবেষণা প্রস্তাব জমা দিবেন তাদেরকে নিম্নলিখিত বিষয়সমূহ বিবেচনায় নিতে হবে।

এনার্জি অপ্টিমাইজেশানে নতুন পদ্ধতি

এনার্জি সিস্টেমের কর্মক্ষমতা মূল্যায়ন

শিল্প শক্তির অপ্টিমাইজেশান

ভবনসমূহে শক্তি-দক্ষতা এবং ব্যবস্থাপনার উন্নয়ন

চাহিদার প্রতিক্রিয়ায় গ্রাহকদের অংশগ্রহণের জন্য স্মার্ট প্রযুক্তির ব্যবহার

সিস্টেম অপারেশনের উপর DR/DSM এর প্রভাব

ইউটিলিটি-পরিচালিত চাহিদা স্থানান্তরিত করণ


Share with :

Facebook Facebook